1. mehraz1987@gmail.com : mehraz fahmee : mehraz fahmee
  2. dainik71news@gmail.com : Milton talukder : Milton talukder
সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০১:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মেজিস্টিক হলে আগামী ২৬ এবং ২৭ ডিসেম্বর দুইদিন ব্যাপী সিলেট সদর থানা এসোসিয়েশনের রজত জয়ন্তী উদযাপন বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে উদযাপিত হবে সিলেট সদর থানা এসোসিয়েশন অফ আমেরিকার রজত জয়ন্তী শ্রী সজল কান্তি কর ফুলেল শুভেচ্ছা য় সংবর্ধিত বিভিন্ন পূজামণ্ডপ ও মন্দিরে হামলায় নিন্দা জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা কাজী কয়েস পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে মাসুদুল হাসান এবং কাজী কয়েস সিলেট জেলা এবং মহানগর ছাত্রলীগের কমিটিকে যুক্তরাষ্ট্র সিলেট বিভাগীয় আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের অভিনন্দন বিয়ানীবাজার সামাজিক এবং সাংস্কৃতিক সমিতি নির্বাচন, আলোচনায় মিসবাহ-অপু পরিষদ দুইদিন ব্যাপী জাঁকজমক অনুষ্ঠানে পালিত হবে সিলেট সদর থানা এসোসিয়েশন অফ আমেরিকার রজত জয়ন্তী উদযাপন টিউলিপ সিদ্দিকীর উপর হামলায় তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন কাজী কয়েস যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সাথে ভার্চুয়ালি মতবিনিময় করবেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আতাউলগণি ওসমানীর জন্মদিন আজ

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩৬১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মুক্তিযুদ্ধের প্রধান সেনাপতি বঙ্গবীর জেনারেল মুহাম্মদ আতাউল গণি ওসমানীর ১০৩তম জন্মদিন আজ। ১৯১৮ সালের ১ সেপ্টেম্বর বাবা খান বাহাদুর মফিজুর রহমানের কর্মস্থল সুনামগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। তার গ্রামের বাড়ি সিলেটের বালাগঞ্জে।

জেনারেল ওসমানী যৌবনে ব্রিটিশ আর্মিতে যোগ দেন। সেখানে তিনি ছিলেন বাঙালিদের মধ্যে সর্বকনিষ্ঠ মেজর। পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে থাকাকালে ইস্টবেঙ্গল রেজিমেন্ট প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন তিনি। এ ছাড়া চট্টগ্রাম সেনানিবাসের প্রতিষ্ঠাতাও তিনি। ১৯৬৭ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনী থেকে অবসর গ্রহণ করেন কর্নেল হিসেবে।

বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে সত্তরের ঐতিহাসিক নির্বাচনে এমএনএ নির্বাচিত হন ওসমানী। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে মুক্তিবাহিনীর প্রধান হিসেবে অসামান্য কৃতিত্ব প্রদর্শন করেন। স্বাধীনতার পর ১৯৭১ সালের ২৬ ডিসেম্বর তাকে বাংলাদেশ আর্মড ফোর্সের জেনারেল পদে নিয়োগ দেওয়া হয়। ১৯৭২ সালে দায়িত্ব থেকে অবসর নিয়ে বঙ্গবন্ধু সরকারের মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ পদে বসেন তিনি। ১৯৭৩ সালের সংসদ নির্বাচনেও নির্বাচিত হন তিনি। তবে পরের বছর মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন। পরে বাকশাল গঠনের প্রতিবাদে ১৯৭৫ সালে সংসদ সদস্য পদ ও আওয়ামী লীগের সদস্যপদ ত্যাগ করেন। সপরিবারে বঙ্গবন্ধু হত্যার পর ১৯৭৫ সালের ২৯ আগস্ট খন্দকার মোশতাক আহমেদের প্রতিরক্ষা উপদেষ্টা পদে নিয়োগ পান ওসমানী। তবে ৩ নভেম্বর জেলহত্যার ঘটনার পর ওই পদ থেকে পদত্যাগ করেন। ১৯৭৬ সালে জাতীয় জনতা পার্টি নামে নিজেই একটি রাজনৈতিক দল প্রতিষ্ঠা করেন।

এমএজি ওসমানী ১৯৭৮ সালের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে সম্মিলিত বিরোধী দলের প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। পরে ১৯৮১ সালের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন তিনি। ১৯৮৪ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি এই কৃতী পুরুষের জীবনাবসান ঘটে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2021
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD